Tag Archives: GAMING

এটি একটি ২৭ ইঞ্চির ফুল এইচডি কার্ভ মনিটর যার রিফ্রেশ রেট হচ্ছে ১৬৫ গিগাহারটজ। বক্সটি ওপেন করলেই পাবেন এর ইন্সটলেশন গাইড, সেট আপ গাইড ইত্যাদি ইত্যাদি। ভেতরে একটি বিপি ১.২ ক্যাবল থাকবে একটি এইচডি এম আই ক্যাবল এবং একটি ইউএসবি ক্যাবল এছাড়াও পাবেন এর ভিসা মাউন্ট বেজ। এর মধ্যেও খুব সুন্দর ভাবে স্ক্র সেট করা হয়েছে যার মাধ্যমে আপনি খুব সুন্দরভাবে নিজ হাতেই মাউন্ট করতে পারবেন এবং আপনি এর হাইট অ্যাডজাস্ট করতে পারবেন ১৩০ মিলিমিটার পর্যন্ত। এক হাতেই টিল্ট করা যাবে যা আমার কাছে সবচেয়ে সুন্দর ফিচার মনে হয়েছে এবং ২০ ডিগ্রি পর্যন্ত লেফট রাইট এ মভ করতে পারবেন। যদি এইচডি আর এনাবল করতে চান তাহলে ডেফেনেটলি উইন্ডোস সেটিংস এ গিয়ে এনাবল করতে হবে। ভেতরে ANC (active noise cancellation) ও রয়েছে। পেছনের দিকে আরজিবি লাইট দেওয়া হয়েছেত ঠিকই কিন্তু অরাসের লোগোতে দেওয়া হয়নি লাইট গুলো আরজিবি ফিউশনের মাধ্যমে সিঙ্ক্রোনাইজও করতে পারবেন। মনিটর টি AMD radeon FreeSync2 HDR সাপোর্টেড, জি সিঙ্ক…

Read more

CV27Q হ’ল মার্জিত ডিজাইনের সাথে একটি সুন্দর 1500R CURVED মনিটর যা একটি বিপরীত অনুপাতে 3000: 1 8-বিট ভিএ প্যানেল 90% DCI-P3 সমর্থন করে। কৌশলগত মনিটর হিসাবে, সিভি 27 কিউ-তে সমস্ত কৌশলগত বৈশিষ্ট্য রয়েছে এমন গেমারদের জন্য এই মনিটরেরটিকে নিখুঁত পছন্দ করে তোলে যা এএএ গেমস এবং মিডিয়া বিনোদন পছন্দ করে। যদি আপনি অরাস মনিটর গুলোর সাথে ফ্যামিলিয়ার হয়ে থাকেন তাহলে নিশ্চয়ই “ CV27(F)” মনিটর টি অবশ্যই চিনে থাকবেন। কিন্তু আজ যেটা নিয়ে কথা বলব তার মডেল হল “CV27(Q)” আর সবচেয়ে বড় পার্থক্য হল এদের নেইমিং এ। QHD এর কারনে এর নামের সাথে “ Q” অ্যাড করা হয়েছে। এই মনিটরটির রেজোলিউশন ২৫৬০X১৪৪০ এবং ২৭”৮-বিট ভিএ প্যানেল। অত্যান্ত হাই রেজোলিউশন কারনে আপনি শার্পার ইমেজ কোয়ালিটি উপভোগ করতে পারবেন এবং এটা আপনাকে গেইমিং এ ইমারস রাখবে। এর অন্যতম একটি বৈশিষ্ট হল এটা হাই বিট রেট থ্রী সাপরটেড হাই বিট রেট থ্রী ডিস্প্লে পোর্ট 1.4 নামেও সুপরিচিত। তাহলে এর অর্থ? মানে এটা আপনাকে একই…

Read more

নাম শুনেই বুঝতে পারছেন এটি একটি ম্যাকানিকাল কিবোর্ড সেই সাথে আরজিবিও। বক্সের মধ্যে এক্সট্রা ৯টি বাটন পাবেন রঙ ভিন্ন আপনি চাইলেই নিজের ইচ্ছে মত খুলে এক্সট্রা কি গুল লাগিয়ে নিতে পারবেন এবং সুইচ খোলার জন্য একটি সুইচ পুলার দেওয়া থাকবে যার মাধ্যমে আপনি বাটন গুল খুলতে পারবেন। কিবোর্ডটি আরজিবি ফিউশন অর্থাৎ ইচ্ছে মত কিবোর্ডের রঙ পরিবর্তন করতে পারবেন। এটি splash proof অর্থাৎ পানিতে ডুবালেও কিছুই হবেনা আরামসে কাজ করতে পারবেন। বড়ই বিস্ময়জনক একটি প্রোডাক্ট। হাতে নিলেই একটি প্রিমিয়াম ফিল পাওয়া যায়। বক্সের ভিতরে ইউজার গাইড ম্যানুয়াল পাবেন। কিবোর্ডটির তার দুই মিটার লম্বা এবং কোয়ালিটিও বেশ ভাল কিবোর্ডটির ব্যাকসাইডে ডিফ্রেন্ট ক্যাবল রোটিং অপশন পাবেন। তাহলে চলুন আপনাদেরকে বলে দেই কি কি ব্যাক লাইটিং মোড রয়েছে এর মধ্যে। এর জন্য আপনাকে যেতে হবে আপনার পিসি তে তারপর লঞ্চ করতে হবে আরজিবি ফিশন এপ্লিকেশন। তারপর কিছু মোড দেখা যাবে যা দ্বারা লাইট কন্ট্রোল করতে পারবেন। সর্ব প্রথম যে মোড টি থাকবে সেটি হল…

Read more

3/3