GIGABYTE PB500 80 PLUS BRONZE CERTIFIED 500 WATT POWER SUPPLY

GIGABYTE PB500 80 PLUS BRONZE CERTIFIED 500 WATT POWER SUPPLY

পিসিইউটির বিল্ড কোয়ালিটি খুবই সলিড! এর মধ্যে এমন অনেক কিছুই রয়েছে যা খুব বেশি হাইলাইটেড তার মধ্যে যে সবচেয়ে বেশি সেটা হল 80+ ব্রঞ্জ এফিসিয়েন্সি! 80+ ব্রঞ্জ বলতে বোঝায় একটি এফিসিয়েন্সি লেভেল! 80+ ব্রঞ্জ হয় 80+ গোল্ড হয় 80+ প্ল্যাটিনাম হয় এছাড়াও ভিন্ন ভিন্ন লেবেল হয়ে থাকে! এখানে ব্রঞ্জ হচ্ছে একটি সারটিফাইড লেভেল। অর্থাৎ আপনি যদি এটা লোড করে ইউজ করে তাহলে ম্যাক্সিমাম এফিসেন্সি পাবেন 86% এর মানে আপনি যদি এটা ব্যাবহার করেন আপনার পিসিতে এবং পিসি অনেক সময় ধরে ইউজ করেন তাহলে হতে পারে ইলেক্ট্রিসিটির কস্টের ক্ষেত্রে আপনার কিছুটা সেভিংস হতে পারে। শুধু তাই নয়, এফিসেন্সি যখন বেশি তখন হিট এর যে জেনারেশন অর্থাৎ যে হিট জেনারেট হয় তা খুব কম হয়। যার ফলে সিস্টেমের টেম্প্রেচার বিশেষ করে পিএসইউ এর টেম্প্রেচার লো থাকে। যদিও এক্ষেত্রে প্রসেসর এর হিট তেমন প্রভাব পরেনা। তবে ওভারঅল টেম্প্রেচার খুব লো থাকে। ২য় হাইলাটেড ফিচারটি হল এর সাইলেন্ট ফ্যান। অর্থাৎ আপনি যখন পিসি আইডল সিটুয়েশনে ইউজ করেন তখন পাওয়ার কন্সাম্পশন লো থাকে সে সময় এর ফ্যান অফ হয়ে যায়। যার ফলে নয়েজ লেভেল অনেক কম দেখা যায়!! যদিও বাজেট সেগ্মেন্টে থেকে কেও নয়েজের তেমন চিন্তা করেনা, তুবও এই ফিচারটি খুব ভাল। পিএসইউএর পেছনে কারেন্টের রেটিং দেওয়া রয়েছে। এবং এটা যেকোন বাজেট সেগমেন্টএর পিসির জন্য সাফিসিয়েন্ট। আপনি চাইলে 1060 বা rx47 এর মত কার্ড ইজিলি ইউজ করতে পারবেন তবে যদি ওভারক্লকিং করতে চান তাহলে এর থেকে একটু ভাল পিএসইউ নিলে ভাল হবে। এখন আপনি একটা বিষয় লক্ষ্য করে দেখতে পারেন, একটি জেনরিক ৪৫০ ওয়াট এর পিএসইউ এর দাম পরে ( ২,৩০০) টাকায় আর এই পিএসইউটি একটি সারটিফাইড এফিসেন্সি অফার করে পাশাপাশি কিছু ভাল ফিচারও অফার করে থাকে তাই এর মার্কেট প্রাইস (৩,০০০) টাকা। তো এখন আপনি নিজেই ডিসাইড করতে পারবেন, যদি আপনি একটি বাজেট সেগমেন্টের পিএসইউ চান সেক্ষেত্রে জেনরিক পিএসইউ নিতে পারেন যেমন- থার্মালটেক, করসায়ার বা কুলারমাস্টার ও নিতে পারেন। আর যদি একটু এক্সট্রা খরচ করে একটু প্রিমিয়ামের দিকে মুভ করতে চান তাহলে আমি আপনাকে এই পিএসইউটি অধিক রিকমেন্ড করব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *